শোবার ঘর সাজাবেন যেভাবে

শোবার ঘর সাজাবেন যেভাবে

নিজের ঘর সবার কাছে খুবই প্রিয় একটি জায়গা এটা নিঃসন্দেহে বলা যায় । সারাদিনের কর্ম ক্লান্তি শেষে নিজের বিছানায় একটু গড়াগড়ি করে বিশ্রাম নিতে কার না ভালো লাগে। আমাদের শোবার ঘরে সাধারণত থাকে খাট, ওয়াল টেলিভিশন, ওয়ারড্রব, ড্রেসিং টেবিল, জানালার পাশে টি-টেবিল বা কফি টেবিল এবং শোপিস সাজানোর জন্য শোপিস স্ট্যান্ড, ঘরে লাগানো উপযুগি এমন গাছ ইত্যাদি। তবে ইদানীং ছোট রুমগুলোতে জায়গা বাঁচানোর জন্য ওয়াল কেবিনেট দিয়ে ঘর সাজানো হচ্ছে।

হয়তো অনেকেই ভাবতে পারে খাট ছাড়া কোনো শোবার ঘরই পরিপূর্ণ নয়। শোবার ঘর মানেই নানা ম্যাটেরিয়ালে তৈরি খাট। কিন্তু আপনি আপনার রুচি অনুযায়ী শোবার ঘরে খাটের পরিবর্তে ম্যাট্রেস বসিয়ে তার উপরে সুন্দর করে সাজাতে পারেন বাহারি রঙের ছোট বড় বিভিন্ন আকৃতির কুসন, এতে আপনি আরামে ঘুমাতেও পারবেন এবং আপনার সৃজনশীলতার পরিচয় ফুটে উঠবে।

শোবার ঘর সাজাবেন যেভাবে

আপনার শোবার ঘরের দেয়াল রাঙাতে পারেন পছন্দ অনুযায়ী হালকা রং দিয়ে। তবে দেয়ালের রঙ পছন্দ করার সময় কিছু বিষয় মাথায় রাখতে হবে, আপনি আপনার শোবার ঘরকে মনের মতো করে সাজাতে ও ঘরকে আকর্ষণীয় করে তুলতে চাইলে যে কোন একটি দেয়ালকে গাঢ় রঙ ও অন্য দেয়ালগুলোতে হালকা রঙ এর ব্যবহার করতে পারেন এবং এই হালকা রঙ এর পাশেই আপনি আপনার পছন্দ মতো খাট অথবা মেট্রেক্স রেখে দেয়ালে লাগাতে পারেন পছন্দসই ওয়াল ম্যাট।

দেয়ালের রঙ এর সাথ মিলিয়ে এসির রঙ নির্বাচন করুন এবং এসি লাগানোর দেয়ালটি যাতে বাহিরের দিকটিতে হয় সেই বিষয় টি লক্ষ রাখুন। এছাড়া ঘরের মেঝেতে ব্যবহার করতে পারেন পছন্দসই কার্পেট যা বাজারে বিভিন্ন সাইজে ও রঙ এর পাওয়া যায়।

আরো পড়ুন …

এবার আসা যাক পর্দা নির্বাচন করার প্রসঙ্গে,পর্দা কেনার সময় মনে করে নিন আপনার ঘরটির দেয়ালের রঙ কি ? দেয়ালের রং এর সাথে সামঞ্জস্য রেখে পর্দা লাগাতে পারেন। তবে পর্দার কাপড় হালকা হওয়াই উত্তম কারন বাতাস চলাচলের জন্য এটি সহায়ক। এর সাথে নিজের শোবার ঘরটিকে আরেকটু রুচিসম্মত করে তুলতে চাইলে পর্দার সাথে মিলিয়ে বিছানার চাদর ,কুশন কাভার, মেঝের কার্পেট ইত্যাদি ব্যবহার করতে পারেন।

এছাড়া ঘরের সৌন্দর্য আরেকটু বাড়াতে চাইলে অর্কিড, বনসাই, মানিপ্লান্ট গাছ রাখতে পারেন।বারান্দাকে সাজিয়ে নিন বাহারি রঙের গাছ দিয়ে। এছাড়া ছোট অর্কিড খাটের পাশের টেবিলেও রাখা যেতে পারে। বারান্দায় মাঝারি সাইজের টবে পাতাবাহার, ছোট ফুলের গাছ কিংবা ঝুলানো টবে অর্কিড রাখা যেতে পারে। এতে করে সবুজ কৃত্রিমতাকে ছাপিয়ে প্রাকৃতিক পরিবেশ সৃষ্টি হবে। অন্যদিকে আপনি বারান্দায় বসার জন্য রকিং চেয়ার রাখতে পারেন।

ইন্টেরিয়র ডিজাইনার / ডেকোরেশন করতে চাইলে যোগাযোগ করুন।

পড়ুন..
শান্তির নীড়ে আলোক সজ্জার বিন্যাস

Leave a Reply