দোসা রেসিপি

যখন-তখন ঘরেই তৈরি করুন সুস্বাদু দোসা!

দোসা খুব সহজে ঘরেই তৈরি করতে পারেন। ব্যাটার তৈরি করে ফ্রিজে রেখে দিতে পারেন এবং যখন মন চায় তখনই ভেজে নিতে পারেন মনের মত দোসা।ব্যাটার ফ্রিজে রেখে বেশ কিছুদিন পর্যন্ত ইউজ করা যায়।

(লাইফস্টাইল-বিডি .কম) আজকাল দোসা প্রতিবেশী দেশ ভারতের মত আমাদের দেশেও খুব জনপ্রিয় খাবার হয়ে উঠেছে। তবে, দোসা খাবার জন্যে সকলেই বেছে নেন রেস্তরাঁকেই। কারণ বাড়িতে দোসা তৈরি অনেকের কাছেই মনে হয় ঝামেলা ও পরিশ্রমের কাজ। আসলেই কি তাই? কিন্তু সুস্বাদু দোসা খুব সহজে ঘরেই তৈরি করা সম্ভব। ব্যাটার তৈরি করে ফ্রিজে রেখে দিতে পারেন আর মন চাইলেই ভেজে নিতে পারেন সুস্বাদু দোসা।

দোসা রেসিপি

প্রয়োজনীয় উপকরণ:
পোলাওর চাল বা আতপ চাল ২ কাপ (সেদ্ধ না)
মাসকলাইয়ের ডাল ৩/৪ কাপ
মুগডাল ১/৪ কাপ
চিড়া ১/৪কাপ (২০ মিনিটের মত পানিতে ভিজিয়ে ধুয়ে ছেঁকে নিন)
মেথিদানা ১ টেবিল চামচ
লবণ ও পানি পরিমাণ মত
লোহার বা ননস্টিক তাওয়া
তেল পরিমাণমত

তৈরী প্রনালী:
সব প্রকারের ডাল এবং মেথি একসাথে ৫-৬ ঘন্টা পানিতে ভিজিয়ে রাখুন।
আতপ চাল ধুয়ে ৫-৬ ঘন্টা পানিতে ভিজিয়ে রাখুন।
ডাল যখন নরম হবে তখন সাথে চিঁড়া মিশিয়ে অল্প পানি দিয়ে ব্লেন্ড করে পেস্ট বানিয়ে নিন।
আবার চালকেও ভালো করে ব্লেন্ড করে নিন। চালের সাথে ডালের পেস্ট মিশিয়ে নিন।
পরিমাণমত পানি দিয়ে মিশিয়ে ৮-১০ ঘন্টা ঢেকে রাখুন। (কোন অন্ধকার জায়গাতে) চাইলে এই মিশ্রন ফ্রিজে রেখে ১ সপ্তাহও ব্যবহার করা যাবে)।
এখন মিশ্রণে পরিমাণ মত পানি ও লবণ মিশিয়ে নিন। (লক্ষ্য রাখবেন ব্যাটারটি বেশি ঘন হবে না, পাটিসাপ্টার মত হবে।)

তাওয়া অনেক গরম করে নিন।তারপর চুলার আঁচ মাঝারি করে ১ কাপের মত ব্যাটার তাওয়ার মাঝখানে দিয়ে চামচ দ্বারা সার্কুলার মোশনে ঘুরিয়ে বড় করে নিন।
কিছু সময় তাওয়াতে রাখার পরে, কাঁচা ভাব দুর হলে ১ চা চামচ ভোজ্য তেল উপরে ব্রাশ করে দিন।
আরো কয়েক মিনিট পর নিচে রং ধরলে ও ক্রিস্পি হলে উঠিয়ে ভাঁজ করে নিন।
চাটনি বা কারির সাথে পরিবেশন করুন গরম গরম।

Leave a Reply